মধ্যপ্রদেশে চাষিদের থেকে জমি হাতিয়ে নিল হিন্দুত্ববাদীরা

জয় কিষাণ ডেস্ক
লিখেছেন জয় কিষাণ ডেস্ক পড়ার সময় 1

দরিদ্র কৃষকদের থেকে জমি হাতানোর অভিযোগ উঠল এবার মধ্যপ্রদেশে। একটি মুসলিম সংস্থার নাম করে এই ঘটনা ঘটানো হয়। ২০০০ সালে ‘তানজিম-ই-জারখেজ’ নামে একটি সংস্থা খারগান শহরের প্রান্তে থাকা গরিব কৃষকদের থেকে স্বল্প মূল্যে জমি কেনে। জমি কেনার সময় তারা চাষিদের বলে একটি মুসলিম কমিউনিটি গড়ে তোলার লক্ষ্যে তারা পাথুরে জমির সমস্তটাই কিনে নিতে চায়। কিন্তু এই ট্রাস্টের মাথায় ছিলেন বিজেপি নেতা রঞ্জিত সিং ডান্ডির। আগে তিনি বজরং দলের কো-কনভেনার ছিলেন। ‘তানজিম-এ-জারখেজ’-এর নাম বদল নিয়ে তাঁর যুক্তি- নাম যদি ‘তানজিম-এ-জারখেজ’হয়, তাতে ক্ষতি কী? আসলে ইসলামিক নাম ব্যবহার করে এই কাজ হিন্দুত্ববাদীদের। এমনটাই মনে করছেন স্থানীয় কৃষকেরা।

নন্দ কিশোর কুশাওয়ালা নামে এক কৃষক জানিয়েছেন, ২০০৪ সালে জাকির নামে এক ব্যক্তি তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করেন। ওই ব্যক্তি জানান, এখানে গরুদের কসাইখানা তৈরি হবে। তাই, মুসলিমদের স্বার্থে তিনি যেন জমি বিক্রি করেন। কিশোর কুশাওয়ালা জানিয়েছেন, জাকিরের কথায় বিশ্বাস করে তিনি তাঁর পাঁচ একর জমি ৪০ হাজার টাকা বিক্রি করে দেয়। এখন সে দেখছে জমি মূলত গোশালা তৈরির জন্য ব্যবহার করা হচ্ছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, ওই ২০০ একরের মধ্যে ১৫০ একর জমিই ১১টি সংস্থার থেকে নেওয়া। বাকি জমিগুলো ক্ষুদ্র চাষিদের থেকে নেওয়া হয়েছে।

সূত্র- পিপলস রিপোর্টার

 বিশদে পড়তে এখানে ক্লিক করুন

ট্যাগ করা হয়েছে:
এই নিবন্ধটি শেয়ার করুন
মতামত দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *