চিংড়ি চাষে টানা লোকসান, পেশা বদলাচ্ছেন বহু চাষি

জয় কিষাণ ডেস্ক
লিখেছেন জয় কিষাণ ডেস্ক পড়ার সময় 1

করোনা-কাল থেকে শুরু করে একের পর এক ধাক্কায় ধরাশায়ী কোটি কোটি টাকার চিংড়ি চাষ। এ বার চাষ হচ্ছে না বহু পুকুরে। বহু চিংড়ি চাষি চাষ বন্ধ করে ঋণের দায়ে ভিন্‌ রাজ্যে চলে গিয়েছেন শ্রমিকের কাজ নিয়ে। এই অবস্থা হিঙ্গলগঞ্জ, হাসনাবাদ, সন্দেশখালি এলাকার।

সূত্রের খবর, ২০১০ সাল থেকে হাসনাবাদ এলাকায় শুরু হয় ভেনামি চিংড়ি চাষ। এরপরে ক্রমশ এই চাষ বাড়তে থাকে। চাষ ছড়িয়ে পড়ে হাসনাবাদ, হিঙ্গলগঞ্জ, সন্দেশখালির নদী এলাকায়। কারণ, এই চাষ করতে গেলে নদীর জল প্রয়োজন হয়। চিংড়ি চাষিরা জানালেন, চাষের বিভিন্ন সামগ্রী বিভিন্ন রাজ্য থেকে আসে। করোনা-কালে সে সব আসা বন্ধ হয়ে যায়। তাই চাষ ভাল হয়নি। তবে জমির লিজ়ের টাকা গুনতে হচ্ছিল। সেই সঙ্গে কর্মীদেরও টাকা দিতে হয়েছে।

২০২১ সালে মাছ চাষ পুরোদমে শুরু হলেও রফতানি হচ্ছিল না বিভিন্ন দেশে। ফলে মাছের দাম তেমন ওঠেনি। ২০২২ সালে আসে ইয়াস। বহু পুকুরের চাষ নষ্ট হয় নদীর বাঁধ ভেঙে। যে সব জায়গায় নদীর বাঁধ ভেঙে ক্ষতি হয়নি, সেখানেও বিভিন্ন রোগ দেখা দেয়। ফলে দ্রুত বিক্রি করতে হয় চিংড়ি। তার জেরেও ক্ষতি হয়েছিল।

সূত্র- আনন্দবাজার পত্রিকা

বিশদে পড়তে এখানে ক্লিক করুন

এই নিবন্ধটি শেয়ার করুন
মতামত দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *