জয় কিষাণ: ২৪ অক্টোবর ২০২২

জয় কিষাণ ডেস্ক
লিখেছেন জয় কিষাণ ডেস্ক পড়ার সময় 6

সাঙ্গরুরে কৃষকদের হকের লড়াইয়ে দীপাবলির রাত কাটবে রাস্তায়

গত ৯ অক্টোবর থেকে দাবি আদায়ের জন্য অবস্থান বিক্ষোভ চলছে পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির সামনে। পাঞ্জাবের সাঙ্গরুরের কৃষকেরা এই অবস্থান বিক্ষোভে শামিল হয়েছেন। নিজেদের দাবিদাওয়ার লড়াইয়ে, হকের লড়াইয়ে সাঙ্গরুরে কৃষকদের দীপাবলির রাত কাটবে রাস্তাতেই। মহিলা কৃষকেরা সামনের সারিতে থেকে নেতৃত্ব দেবেন উৎসবের রাতের কৃষিবিদ্রোহকে। জানা গেছে, প্রতিবাদরত কৃষকেরা পাঞ্জাব সরকারের বিরুদ্ধে স্লোগান তোলার পাশাপাশি বিদ্রোহের গেয়ে, নাটক মঞ্চস্থ করে দীপাবলি উদযাপন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। কৃষক নেতা এবং ভারতীয় কিষাণ ইউনিয়নের (একতা-উগ্রাহন) বারনালা ইউনিটের জেলা সভাপতি কমলজিৎ কৌর-সহ কৃষক নেতারা বিক্ষোভরত এই কৃষকদের সঙ্গে উদযাপন করবেন এবারের দীপাবলি। উৎসবের সঙ্গে মিশে যাবে কৃষক সংগ্রাম।

সূত্র-হিন্দুস্তান টাইমস

বিশদে পড়তে এখানে ক্লিক করুন

ফসলের ন্যূনতম সহায়ক মূল্যের বৃদ্ধি মুদ্রাস্ফীতি হারের তুলনায় কম: কংগ্রেস নেতা রণদীপ সূর্যেওয়ালা

বিজেপি ও বিজেপি নিয়ন্ত্রিত একাংশের গণমাধ্যম, যারা ‘গদি মিডিয়া’ নামে জনসমাজে পরিচিত, ফসলের ন্যূনতম সহায়ক মূল্য বা এমএসপির বৃদ্ধিকে কৃষকদের প্রতি নরেন্দ্র মোদির ‘দীপাবলির উপহার’ বলে প্রচার করছে! বিজেপি শিবিরের এমন প্রচারকে ‘মিথ্যা’ বলে তোপ দেগেছেন বিরোধীরা। বিশেষজ্ঞরাও জানাচ্ছেন, এমএসপির বৃদ্ধি নিয়মতান্ত্রিক একটি বিষয়। এবার কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক রণদীপ সূর্যেওয়ালা সাফ জানালেন, ফসলের ন্যূনতম সহায়ক মূল্যের বৃদ্ধি মুদ্রাস্ফীতি হারের তুলনায় অনেকটাই কম। গত শনিবার একটি ট্যুইটে এমনটাই লিখেছেন তিনি। আরও লিখেছেন, এমএসপির বৃদ্ধির হার মুদ্রাস্ফীতির তুলনায় কম হওয়ায় কৃষকদের কঠিন পরিশ্রম দীপাবলির আলোতে হারিয়ে গেছে।

কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদকের মতে, মোদি সরকারের জন্য কৃষকদের অশ্রু এখন নিত্যদিনের ঘটনা। তাঁর সাফ কথা, ন্যূনতম সহায়ক মূল্য বৃদ্ধি করে মোদি সরকার নিজের পিঠ নিজেই চাপড়ে দিচ্ছে। কিন্তু এই ঘোষণা কৃষকদের সঙ্গে প্রতারণার শামিল। এর ফলে কৃষকদের কঠোর পরিশ্রম করেও রক্ত-অশ্রু ঝরছে। তাঁর আবেদন, এবারের দীপাবলিতে অন্তত ২ মিনিট আমাদের দেশের ৭০ কোটি কৃষক এবং ক্ষেত মজুরদের এই দুর্দশার কথা স্মরণ করুক দেশবাসী।

প্রসঙ্গত, কেন্দ্র গত সপ্তাহের শুরুর দিকে ৬টি রবি শস্যের ন্যূনতম সহায়ক মূল্য ৯ শতাংশ বৃদ্ধি করেছে।

সূত্র- পিটিআই / দ্য টাইমস অফ ইন্ডিয়া

বিশদে পড়তে এখানে ক্লিক করুন

কেরালায় ফসল নষ্ট করার অভিযোগ ‘চাল মাফিয়া’-দের বিরুদ্ধে

বাম শাসিত কেরলের চেলানামের কৃষকেরা এবার ফসল নষ্ট করার অভিযোগ তুললেন। তাদের সন্দেহের তীর চাল মাফিয়াদের দিকে। অভিযোগ, ‘চাল মাফিয়া’রা মাঠ দখল করে পোক্কালি চাষ ধ্বংস করছে। এই চাল মাফিয়ারাই আবার অবৈধ চিংড়ি চাষের সঙ্গে যুক্ত বলে অভিযোগ রয়েছে। প্রসঙ্গত, ঐতিহ্যবাহী পোক্কালি চাষের বিপুল জনপ্রিয়তা রয়েছে। কৃষক দীপক মানজাদি পারম্বিলের বক্তব্য, এটা দুঃখজনক যে এমনকি সে রাজ্যের কৃষিমন্ত্রী পি প্রসাদও চাল মাফিয়াদের ঘৃণ্য পরিকল্পনার পক্ষ নিচ্ছেন।

বিষয়টি নিয়ে কৃষকেরা শীঘ্রই ধারাবাহিক আন্দোলন শুরু করবেন বলে জানিয়েছেন।

সূত্র- দ্য নিউ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

বিশদে পড়তে এখানে ক্লিক করুন

চান্দা গ্রামে বাঘের পেটে কৃষক, ৩ দিনে ২ জনের মৃত্যু

গত শনিবার মহারাষ্ট্রের কুদেসাওলি গ্রামের দক্ষিণ ব্রহ্মাপুরী রেঞ্জের হালদা ফরেস্ট বিটের এক খামারে বাঘের আক্রমণে মৃত্যু হল এক কৃষকের। নাম, সদাশিব উন্ডিরওয়াডে (৬৫)। তিনি গ্রামের উপকণ্ঠে একটি খামারে কাজ করার সময় বাঘের হানায় নিহত হন। আশেপাশের খামারের কৃষকেরা নিহত ব্যক্তির চিৎকার শুনে দৌড়ে গিয়ে দেখেন বাঘ পালিয়ে গেছে। এর আগে গত বৃহস্পতিবার হালদার এক মহিলাও খামারে কাজ করার সময় বাঘের আক্রমণে নিহত হন। বন আধিকারিকেরা মৃতদেহটি প্রাথমিক তদন্তের পর ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়। নিহতের পরিবারকে প্রশাসনের তরফে আপাতত ২৫ হাজার টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়া হয়েছে।  

সূত্র- টিএনএন / দ্য টাইমস অফ ইন্ডিয়া

বিশদে পড়তে এখানে ক্লিক করুন

আরও খবর

পারিবারিক বিবাদের জেরে ফসল নষ্টের অভিযোগ তুলোচাষির

দুর্বৃত্তরা তাঁর চার একর জমিতে কীটনাশক ছড়িয়ে তুলো ফসল নষ্ট করেছে, অভিযোগ করলেন এক তুলোচাষি। এই মহিলা কৃষকের নাম ভারতী। ঘটনাটি ঘটেছে কর্ণাটকের ভাঙ্কসাম্বরা গ্রামে।

এই ব্যাপারে গত রবিবার সাংবাদিক সম্মেলন করে ভারতী জানান, বীজরোপন থেকে শুরু করে এখনও পর্যন্ত তাঁর লাখ লাখ টাকা খরচ হয়েছে। ভালো ফলনের আশায় বীজ কেনার জন্য প্রায় ১.৫০ লাখ টাকা এবং রাসায়নিক ও সার বাবদ আরও বেশ কিছু টাকা খরচ করা হয়েছে। কিন্তু দুর্বৃত্তরা কীটনাশক ছিটিয়ে তাঁর ফসল নষ্ট করেছে!

অভিযোগ, ঘটনার পরেই থানায় অভিযোগ জানাতে যাওয়া হলে পুলিশ বিষয়টিকে এড়িয়ে যায়। এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপ দাবি করেছেন ক্ষতিগ্রস্ত এই মহিলা কৃষক। তাঁর সন্দেহ, কিছু আত্মীয় এই ঘটনার পিছনে থাকতে পারে!

সূত্র- দ্য হিন্দু

বিশদে পড়তে এখানে ক্লিক করুন

তামিলনাড়ুর সালেমে কৃষকের অস্বাভাবিক মৃত্যু, খুন করা হয়েছে বলে ধারণা পুলিশের

শনিবার তামিলনাডুর সালেমে ভাঝাপাদির কাছে পেরিয়াকুট্টিমাডুভু গ্রামের এক কৃষকের রহস্যজনক মৃত্যু হল। মৃত কৃষকের নাম পেরুমল (৬০)। জানা গেছে তিনি নিকটবর্তী এক জঙ্গলে গবাদি পশু চরাতে নিয়ে যান। সন্ধ্যায়, প্রায় ৪টের দিকে তাঁকে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়। পরিবারের সদস্যরা কয়েক ঘণ্টার মধ্যে তাঁর শবদাহ করেন। মৃত কৃষকের পরিবারের দাবি, তাঁদের পারিবারিক রীতি অনুযায়ী শনিবার কারোর মৃত্যু হলে তারা মৃতদেহ বাড়ি নিয়ে যান না, সঙ্গে সঙ্গে দাহ করেন। এই ঘটনায় অনেকে বলতে থাকেন, বনে শিকার করতে আসা লোকজনের গুলিতেই কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। পু্লিশেরও অনুমান কৃষককে খুন করা হয়ে থাকতে পারে।

সূত্র- দ্য হিন্দু

বিশদে পড়তে এখানে ক্লিক করুন

কৃষকের থেকে লুট: ২২ অক্টোবর ২০২২

ট্যাগ করা হয়েছে:
এই নিবন্ধটি শেয়ার করুন
মতামত দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *