জয় কিষাণ: ৭ সেপ্টেম্বর ২০২২

জয় কিষাণ ডেস্ক
লিখেছেন জয় কিষাণ ডেস্ক পড়ার সময় 4

খবর

স্থানীয় দলীয় নেতৃত্বের বিরুদ্ধে জমি লুটের অভিযোগে বিক্ষোভ তৃণমূল ঘনিষ্ঠ কৃষকদের

চন্দ্রকোণার তৃণমূল বিধায়ক অরূপ ধাড়া ও চন্দ্রকোণা দু’নম্বর ব্লকের ব্লক সভাপতি প্রসূন ঘোষের বিরুদ্ধে শতাধিক কৃষকের জমি লুটের অভিযোগ করলেন খোদ তৃণমূল কংগ্রেস অনুগত কৃষকেরাই। এই ঘটনায় পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার চন্দ্রকোণা ২ নম্বর ব্লকে ব্যাপক বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। জমি লুটে অভিযুক্ত এই দুই নেতার বিরুদ্ধে বড় সংখ্যক কৃষক প্ল্যাকার্ড ও তৃণমূলের দলীয় পতাকা নিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন।

অভিযোগ, বান্দিপুর গ্রামের বাসিন্দা প্রসূন ঘোষ ভেস্ট হওয়া প্রায় ৪৫ বিঘে একাধিক গ্রামের প্রায় শতাধিক কৃষকের মধ্যে বণ্টন করেন বিগত বাম আমলে। এরপর ২০১১ সালে রাজ্যের রাজনৈতিক পটপরিবর্তনের পর ভয় দেখিয়ে সেই জমি কেড়ে নিয়েছেন তৃণমূলের বর্তমান ব্লক সভাপতি প্রসূন ঘোষ। তাঁকে মদত দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে, বিধায়কের বিরুদ্ধেও।

এই অভিযোগে মান্যতা দিয়েছেন চন্দ্রকোণা ২ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি হীরালাল ঘোষ। যদিও অভিযুক্ত দুই তৃণমূল নেতা এই অভিযোগ যথারীতি অস্বীকার করেছেন।

সূত্র- টিভি-নাইন বাংলা

বিশদে পড়তে এখানে ক্লিক করুন

প্রেরণা কৃষক অভ্যুত্থান: রাস্তায় নামার বিকল্প নেই, উপলব্ধি সিপিএমের

‘রাস্তাই একমাত্র রাস্তা’। দিল্লির ঐতিহাসিক কৃষক অভ্যুত্থানের অনুপ্রেরণায় বাম আন্দোলনের এহেন ধ্রুপদী স্লোগানেই ফের আস্থা রাখতে চাইছে সিপিএম। কেন্দ্রের শাসকের মোকাবিলায় রাস্তায় নামতে চাইছে দেশের সবচেয়ে বড় এই সংসদীয় বাম দল। মঙ্গলবার নয়াদিল্লির তালকোটরা স্টেডিয়ামে দলের কৃষক, শ্রমিক ও ক্ষেতমজুর সংগঠনকে সঙ্গে নিয়ে অনুষ্ঠিত একটি কনভেনশনে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। কৃষক সভা, শ্রমিক সংগঠন সিটু ও দলের অনুসারী ক্ষেতমজুর সংগঠনকে একত্রে সামনে রেখে ‘জঙ্গি আন্দোলন’-এ ফেরার ডাক পশ্চিমবঙ্গের প্রাক্তন ও কেরলের বর্তমান শাসক দলের। আগামী কেন্দ্রীয় বাজেট অধিবেশনের সময় দিল্লিতে দলের এই তিন গণ-সংগঠন যৌথভাবে ব্যাপক জমায়েত করবে বলে সিপিএমের কনভেনশন সূত্রে জানা গেছে। এর ফলে রাজনৈতিক মহলে জোর চর্চা শুরু হয়েছে, এবার কি তবে বিপ্লবী বামপন্থায় ফিরতে চায় সিপিএম?

সুত্র- দ্য ওয়াল

বিশদে পড়তে খবরটির এখানে ক্লিক করুন

ক্ষতিপূরণের দাবিতে মানেসরে ১৮ সেপ্টেম্বর দিনভর কৃষক বিক্ষোভ

হরিয়ানার মানেসরে ১৮১০ একর জমি অধিগ্রহণের সরকারি সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে আগামী ১৮ সেপ্টেম্বর দিনভর বিক্ষোভ প্রদর্শন, রাস্তা অবরোধ-সহ নানা কায়দায় প্রতিবাদ কর্মসূচির ডাক দিল কৃষক মহাপঞ্চায়েত। মঙ্গলবার জমির মালিক কৃষক ও জমির লিজ নিয়ে চাষ করা কৃষক — উভয় শ্রেণীর চাষিরাই যৌথভাবে মহাপঞ্চায়েত থেকে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তাঁদের দাবি, জমি অধিগ্রহণের বদলে রাজ্য সরকারকে বাজারমূল্য অনুযায়ী একর প্রতি ১৫ কোটি টাকা করে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। পাশাপাশি মানেসর-সহ হরিয়ানার বিভিন্ন জায়গায় শাসক বিজেপি ও জেজেপিকে বয়কট করার ডাক দিয়েছেন।

সূত্র- হিন্দুস্তান টাইমস

বিশদে পড়তে এখানে ক্লিক করুন

নদিয়ায় জমি অধিগ্রহণ রুখে দিল আদিবাসী কৃষক-ক্ষেতমজুর ঐক্য

চাষের জমি কেটে জঙ্গল তৈরির পরিকল্পনা চলছে, এমনটাই অভিযোগ পশ্চিমবঙ্গের বনদফতরের বিরুদ্ধে। আর এ কারণেই নাকি তারা আদিবাসীদের কৃষিজমি অধিগ্রহণ করতে চায়। এমন ‘অদ্ভুত’ সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানিয়ে নদিয়ার বাবলা পঞ্চায়েতের বাহাদুরপুর গ্রামে জমি রক্ষা কমিটি ও পশ্চিমবঙ্গ ক্ষেতমজুর সমিতির নেতৃত্বে অধিগ্রহণ রুখে দিলেন আদিবাসী কৃষক-ক্ষেতমজুররা। সোমবার বন দফতরের আধিকারিকদের সঙ্গে নিয়ে জমি রক্ষা কমিটি এবং পশ্চিমবঙ্গ ক্ষেতমজুর কমিটির সঙ্গে আলোচনায় বসেন বিডিও। সিদ্ধান্ত হয়, আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে আদিবাসীদের নিজেদের জমিতে ১৪৪ ধারা জারি করার ব্যাপারে আদালতের নির্দেশ নিয়ে আসতে হবে।

সূত্র- এই সময়

বিশদে পড়তে এখানে ক্লিক করুন

কৃষকের থেকে লুট: ৭ সেপ্টেম্বর

ট্যাগ করা হয়েছে:
এই নিবন্ধটি শেয়ার করুন
মতামত দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *