জয় কিষাণ: ১০ সেপ্টেম্বর ২০২২

জয় কিষাণ ডেস্ক
লিখেছেন জয় কিষাণ ডেস্ক পড়ার সময় 2

লাগামহীন রফতানির কারণেই বেড়েছে চালের দাম, স্বীকারোক্তি কেন্দ্রীয় খাদ্য সচিবের

লাগামহীন রফতানির কারণেই বেড়েছে চালের দাম, স্বীকারোক্তি কেন্দ্রীয় খাদ্য সচিবের

চালের দাম ঊর্দ্ধমুখি, দুর্ভোগে দেশের সাধারণ মানুষ। অভ্যন্তরীণ বাজারে চালের দাম নিয়ন্ত্রণে নেই। কিন্তু অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন দাবি করেছিলেন যে দ্রব্যমুল্য বৃদ্ধি সার্বিকভাবে নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তাঁর এই দাবি যে মিথ্যে তা প্রমাণিত হয়ে গেল কেন্দ্রীয় খাদ্য দফতরের সচিব সুধাংশু পান্ডের সাংবাদিক সম্মেলনে। বৃহস্পতিবার নয়াদিল্লিতে এক সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি জানিয়েছেন, খরিফ মরশুমে চালের উৎপাদনে ঘাটতি হয়েছে ব্যাপক হারে। পাশাপাশি কর্পোরেট সংস্থাগুলোর মাধ্যমে খাদ্যশস্যের রফতানি বিপুল বৃদ্ধির কারণে বাড়ছে চালের দামের ক্ষেত্রে মূল্যবৃদ্ধি। চলতি মরশুমে চালের উৎপাদন ১ কোটি থেকে ১.২ কোটি টন কমেছে।

সূত্র- গণশক্তি

বিশদে এখন জানতে এখন ক্লিক করুন

সরকারের উচিত এখনই কৃষকের পাশে দাঁড়ানো: মায়াবতী

কৃষকদের থেকে বকেয়া রাজস্ব ও সেচের মূল্য পুনরুদ্ধারের জন্য উত্তরপ্রদেশের বেশ কয়েকটি জেলায় সমীক্ষা চালানোর নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী আদিত্যনাথ যোগী। আর এরপরেই ইউপি সরকারের প্রতি বহুজন সমাজ পার্টির (বিএসপি) নেত্রী মায়াবতীর বক্তব্য, বকেয়া রাজস্ব ও সেচের মূল্য- এসব কথা না ভেবে রাজ্য সরকারের উচিত এখনই কৃষকের পাশে দাঁড়ানো। তাঁর বক্তব্য, ফসলের ন্যায্য মূল্য না পাওয়ায় কৃষক সমাজ চরম দুর্দশায় রয়েছে, পাশাপাশি এ বছরে স্বল্প বৃষ্টি তাঁদের দুর্ভোগ আরও বাড়িয়েছে। কৃষকের প্রতি সরকারি অবহেলাকে কটাক্ষও করেছে বহুজন সমাজ পার্টির নেত্রী।.

সূত্র- হিন্দুস্তান টাইমস

বিশদে জানতে এখানে ক্লিক করুন

ধান কেনার সরকারি শিবির বন্ধ, মাথায় হাত কোচবিহারের চাষির

লক্ষ্যমাত্রা পূরণ হয়ে যাওয়ায় ধান কেনা এই মুহূর্তে স্থগিত রেখেছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। অন্যদিকে একশো দিনের কাজও এই মুহূর্তে বন্ধ। আর এসবের জেরেই শারদ উৎসবের মুখে চরম বিপাকে পড়েছে কোচবিহারের কৃষকেরা। বাধ্য হয়ে প্রথমে কুন্টাল প্রতি দেড় হাজার টাকা এবং পরে কুইন্ট্যাল প্ৰতি ১,২০০-১,৩০০ টাকায় ধান বিক্রি করতে হচ্ছে। রাজ্যের খাদ্য ও সরবরাহ দফতরের কোচবিহার জেলা আধিকারিক দাওয়া শেরপা জানিয়েছেন, রাজ্য সরকার ফের আগামী নভেম্বর মাস থেকে আবার ধান কেনা শুরু করবে।

সূত্র- আনন্দবাজার পত্রিকা

কৃষকের থেকে লুট: ১০ সেপ্টেম্বর

ট্যাগ করা হয়েছে:
এই নিবন্ধটি শেয়ার করুন
মতামত দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *