জয় কিষাণ: ৬ ডিসেম্বর ২০২২

জয় কিষাণ ডেস্ক
লিখেছেন জয় কিষাণ ডেস্ক পড়ার সময় 6

কৃষকরা ১৫ ডিসেম্বর অমৃতসর জাতীয় সড়কে টোল প্লাজা ঘেরাও করবেন

সর্বভারতীয় কিষাণ মজদুর সংঘর্ষ কমিটির পাঞ্জাবের সদস্যরা ১৫ ডিসেম্বর থেকে পাঞ্জাবের অমৃতসরে জাতীয় সড়কের টোল প্লাজা এবং ১২ ডিসেম্বর বিধায়ক ও মন্ত্রীদের বাসভবন ঘেরাও করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন । জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের বাইরে সোমবার আন্দোলনের দশম দিনে, কিষাণ মজদুর সংঘর্ষ কমিটির রাজ্য সাধারণ সম্পাদক সারওয়ান সিং পান্ধের বলেন, “সর্বভারতীয় কিষাণ মজদুর সংঘর্ষ কমিটির পাঞ্জাব রাজ্য কমিটির বৈঠকে সংগ্রামকে আরও তীব্র করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।”

কৃষকদের সমস্যাগুলির প্রতি পাঞ্জাব সরকারের উদাসীন মনোভাবের পরে, সর্বভারতীয় কিষাণ মজদুর সংঘর্ষ কমিটি একটি কর্মপরিকল্পনা স্থির করেছে। ১৫ ডিসেম্বর থেকে ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত পাঞ্জাবের অমৃতসরে জাতীয় সড়কগুলি জনসাধারণের জন্য টোল ফ্রি করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানান সারওয়ান সিং পান্ধের। কৃষক সংগঠনের রাজ্য নেতা গুরবচন সিং চাব্বা বলেন, “১২ ডিসেম্বর পাঞ্জাব সরকারের বিধায়ক এবং মন্ত্রীদের বাড়ি ঘেরাও করা হবে।” তিনি আরও বলেন, “গত দশ দিন ধরে সর্বভারতীয় কিষাণ মজদুর সংঘর্ষ কমিটি শান্তিপূর্ণভাবে পাঞ্জাবের ডিসি অফিসে বিক্ষোভ করছে এবং কৃষকদের দাবি তুলেছে, কিন্তু রাজ্য সরকার তাতে কর্ণপাত করছে না।”

সূত্র- দ্য ট্রিবিউন

বিশদে পড়তে এখানে ক্লিক করুন

শহিদ কৃষকদের শ্রদ্ধা জানাতে সিংঘু সীমান্তের দিকে সংযুক্ত কিষাণ মোর্চা

বাতিল হওয়া কৃষি আইনের বিরুদ্ধে আন্দোলনের প্রথম বার্ষিকী পালন এবং আন্দোলনের সময় নিহত কৃষকদের শ্রদ্ধা জানাতে সংযুক্ত কিষাণ মোর্চার তরফ থেকে আগামী ১১ ডিসেম্বর সিংঘু সীমান্তে রওনা দেওয়ার কথা ঘোষণা করা হল। ভাটিন্ডা এবং মানসা জেলার গ্রাম ও ব্লক স্তরে কৃষক এবং ক্ষেতমজুররা মিটিং এবং ডোর টু ডোর কার্যক্রম পরিচালনা করা শুরু করে দিয়েছেন।

গত রবিবার মানসার খাদক সিংওয়ালা গ্রামে একটি সমাবেশের আয়োজন করা হয় যেখানে বিপুল সংখ্যক কৃষক, ক্ষেতমজুর এবং মহিলারা অংশগ্রহণ করেন। বিকেইউ এর জেলা সভাপতি লক্ষবীর সিং আকলিয়া বলেন “তিনটি কৃষি আইনের বিরুদ্ধে আন্দোলনের সময় ৭০০জনেরও বেশি কৃষক ও শ্রমিক মারা গিয়েছিলেন। তাই আমরা তাঁদের প্রতি আন্তরিক শ্রদ্ধা জানাতে সিংঘু সীমান্তের প্রতিবাদস্থলে গিয়ে তাঁদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাব”।

সূত্র- ট্রিবিউন ইন্ডিয়া

বিশদে পড়তে এখানে ক্লিক করুন

লখিমপুর খেরি কৃষক হত্যা মামলায় অজয় মিশ্রর ছেলের বিরুদ্ধে নতুন করে মামলা দায়ের

উত্তরপ্রদেশের লখিমপুর খেরিতে কৃষকদের ওপর ট্রাক্টর চালিয়ে ৪ জন চাষি ও এক সাংবাদিককে হত্যার অভিযোগে আশিস মিশ্রর বিরুদ্ধে অবশেষে চার্জ গঠন করতে চলেছে আদালত। উল্লেখ্য, এই মামলাকে লঘু করার এবং তদন্ত প্রক্রিয়া বিলম্বিত করার ব্যাপারে পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছিল, সুপ্রিম কোর্টের হস্তক্ষেপের পরেই এই মামলার তদন্তে কিছুটা গতি সঞ্চার হয়। কৃষকরা বলছেন, কেবলমাত্র আশিস মিশ্রের বিরুদ্ধে তদন্ত পরিচালিত করে তাকে শাস্তি দিলেই শহিদ কৃষক ও মৃত সাংবাদিকের পরিবারবর্গ ন্যায়বিচার পাবে না, আশিস মিশ্রর পাশাপাশি অজয় মিশ্রকে গ্রেফতার করে তাঁর শান্তি সুনিশ্চিত করলে এক্ষেত্রে তবেই ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠিত হতে পারে। কেননা, লখিমপুর খেরি হত্যাকাণ্ডের মূল ষড়যন্ত্রী স্বয়ং অজয় মিশ্র। গোটা ঘটনার নীল নকশা তাঁরই তৈরি করা।

প্রসঙ্গত, সংযুক্ত কিষাণ মোর্চা ইতিমধ্যেই দেশের রাষ্ট্রপতির কাছে যে স্মারকলিপি পেশ করেছে, তাতে স্পষ্টতই অজয় মিশ্রকে গ্রেফতারের পাশাপাশি কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভা থেকে তাঁকে বরখাস্ত করার দাবি জানিয়েছে। স্বরাজ ইন্ডিয়াও এই একই দাবিতে অনড়। দেশের বিচারবিভাগের এই পদক্ষেপকে স্বাগত জানাচ্ছে স্বরাজ ইন্ডিয়া। পাশাপাশি, দেশের বিচারব্যবস্থার প্রতি সম্পূর্ণ আস্থা রেখেই স্বরাজ ইন্ডিয়া দাবি জানাচ্ছে, এই হত্যার মামলায় আশিস মিশ্রর বাবা তথা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অজয় মিশ্রকে যুক্ত করে তাঁকে অবিলম্বে গ্রেফতার করতে হবে। এই বিষয়ে স্বরাজ ইন্ডিয়ার সাধারণ সম্পাদক অভীক সাহা বলেন, “আশিস মিশ্রের শাস্তি সুনিশ্চিত করার পাশাপাশি অজয় মিশ্রকে গ্রেফতার ও তাঁকে পদ থেকে বরখাস্ত না করা হলে কেন্দ্রের মোদি-শাহ সরকারের বিরুদ্ধে সংযুক্ত কিষাণ মোর্চার পাশাপাশি স্বরাজ ইন্ডিয়াও আন্দোলন জারি রাখবে। দাবি আদায় না হলে তা ছিনিয়ে আনা হবে।”

আরও খবর

জলন্ধরে একাধিক দাবি-দাওয়া নিয়ে আন্দোলনে কিষাণ মজদুর সংগ্রাম কমিটির সদস্যরা

আজ কিষাণ মজদুর সংগ্রাম কমিটির সদস্যরা তাঁদের আন্দোলনকে আরও তীব্র করার হুঁশিয়ারি দিলেন। বিগত ন’দিন ধরে তাঁরা জলন্ধরের জেলা প্রশাসন কমপ্লেক্সে বিক্ষোভ করছে। তাঁদের দাবি, নির্বাচনের আগে পাঞ্জাব সরকার তাঁদের যা প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল এখন তারা সেটা পূর্ণ করতে ব্যর্থ হচ্ছে। একটি সংবাদ সম্মেলনের সময় কমিটির রাজ্য আহ্বায়ক সুখবিন্দর সিং সবার এবং জেলা সভাপতি সালভিন্দর সিং জানান, তাঁরা সাংসদ ও বিধায়কদের কাছে কৃষকদের দাবি-দাওয়া নিয়ে চিঠি জমা দেবেন।

তাঁরা জানান, আগামী ৫ ডিসেম্বর তাঁরা রাজ্য জুড়ে সাংসদদের বাসভবনের বাইরে দুপুর ১২ টা থেকে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত বিক্ষোভ করবেন। এরপর আগামী ৭ ডিসেম্বর তাঁরা দুপুর ১২ টা থেকে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত ডিসি অফিসের গেট অবরোধ করবেন। এরপর তাঁরা ১২ ডিসেম্বর বিধায়ক এবং মন্ত্রীদের বাসভবনের বাইরে বিক্ষোভের পরিকল্পনা করেছেন। কিষাণ মজদুর সংগ্রাম কমিটির সদস্যরা জানান কর্তৃপক্ষ যদি তাঁদের সমস্যার সমাধান না করে তাহলে তাঁরা আগামী ১৫ ডিসেম্বর থেকে ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত টোল প্লাজাগুলিতে বিক্ষোভ করবেন।

সূত্র- দ্য ট্রিবিউন

ঋণের দায়ে মহীশূরের কৃষকের আত্মহত্যা

শুক্রবার বিকেলে কর্ণাটকের জয়পুরা সীমানার অন্তর্গত হারোহল্লি গ্রামে এক কৃষকের আত্মহত্যার খবর প্রকাশ্যে এল। মৃত কৃষকের নাম শিবরাজু এস (৫৩)। তাঁর পরিবার সূত্রে জানা গেছে, শিবরাজু তাঁর কৃষিকাজের জন্য ঋণ নিয়েছিলেন এছাড়াও পারিবারিক অনুষ্ঠানের জন্যও তিনি টাকা ধার করেছিলেন। কিন্তু সেই টাকা মেটাতে না পেরে তিনি অবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়েন। এর পরেই তিনি আত্মঘাতী হন। শুক্রবার সন্ধ্যায় এই বিষয়ে একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে।

সূত্র- দ্য টাইমস অফ ইন্ডিয়া

কৃষকের থেকে লুট: ৩ ডিসেম্বর ২০২২

ট্যাগ করা হয়েছে:
এই নিবন্ধটি শেয়ার করুন
মতামত দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *