জয় কিষাণ: ৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

জয় কিষাণ ডেস্ক
লিখেছেন জয় কিষাণ ডেস্ক পড়ার সময় 3

গ্রেটার নয়ডায় কৃষক বিক্ষোভ

গৌতম বুদ্ধ নগরের কৃষকরা নয়ডা এবং গ্রেটার নয়ডা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে মঙ্গলবার আন্দোলন শুরু করছেন। এদিন বিক্ষোভে প্রায় ১০ হাজার কৃষকের যোগদানের খবর পাওয়া গেছে। কৃষক নেতা রূপেশ ভার্মা কৃষকদের ১২ টি দাবি নিয়ে গ্রেটার নয়ডা কর্তৃপক্ষের কাছে যান। সেখানে আধিকারিকদের সঙ্গে কৃষকদের বাদানুবাদ হয় এবং রূপেশ ভার্মা-সহ ৩০ জন কৃষকের বিরুদ্ধে কর্তৃপক্ষ একটি এফআইআর দায়ের করে।

এদিন বিক্ষোভকারী কৃষকরা বলেন, তাঁদের দাবি ও সমস্যা দীর্ঘদিন ধরে সরকারের কাছে উত্থাপিত হলেও সরকার তাতে আমল দেয়নি। কৃষকদের সঙ্গে আলোচনায় প্রধানত ১২টি সমস্যা সামনে এসেছে। সিট ছাড়পত্র দিলেও কর্তৃপক্ষ কৃষকদের সমস্যা নিয়ে ভাবিত নয় বলেও কৃষকরা জানান।

সূত্র- নিউজ ৭ নয়ডা

বিশদে পড়তে এখানে ক্লিক করুন

কৃষকরা জমির ন্যায্য ক্ষতিপূরণ চাইলেন পাঞ্জাবে

কৃষক এবং জেলা সড়ক সংগ্রাম কমিটির সদস্যরা মঙ্গলবার মোহালি বিমানবন্দর সংযোগকারী জাতীয় সড়ক ২০৫-এ’র জন্য ভারতমালা প্রকল্পের অধীনে অধিগৃহীত জমিগুলির জন্য কৃষকদের কম দাম দেওয়ার বিরুদ্ধে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের বাইরে বিক্ষোভ করেন।

চাষিরা অধিগৃহীত জমির হার বৃদ্ধির দাবিতে তহসিলদারের কাছে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে পাঞ্জাব সরকারের কাছে পাঠানোর জন্য একটি স্মারকলিপিও পেশ করেন । সরকার জোরপূর্বক জমি অধিগ্রহণ করলে আন্দোলন আরও কঠোর করার হুমকি দেন আন্দোলনকারীরা। অধিগৃহীত জমির ন্যায্য ক্ষতপূরণের দাবিতে গত ২০ মাস ধরে বিক্ষোভকারীরা ধর্নায় বসে আছেন।

সূত্র – দ্য ট্রিবিউন ইন্ডিয়া

বিশদে পড়তে এখানে ক্লিক করুন

ফারাক্কায় আদানির বিদ্যুৎ প্রকল্পের ফলে বিপাকে চাষিরা

বাংলাদেশে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেওয়ার জন্য ফারাক্কায় বেআইনিভাবে জমি দখল করেছে আদানি গোষ্ঠী। এই অভিযোগ তুলে সম্প্রতি কলকাতা হাইকোর্টে মামলা দায়ের হয়েছে। সেই মামলায় সব পক্ষকে যুক্ত করার নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট।

প্রসঙ্গত, ঝাড়খণ্ডে আদানি গোষ্ঠীর বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র রয়েছে। সেখান থেকে বাংলাদেশে বিদ্যুৎ নিয়ে যাওয়ার জন্য ফরাক্কায় জমি অধিগ্রহণ করে আদানি গোষ্ঠী। কৃষকদের বক্তব্য, এর ফলে চাষে ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে। বিশেষ করে সেখানে প্রচুর আম, লিচু গাছ রয়েছে। হাইটেনশন তার নিয়ে যাওয়ার ফলে এই সমস্ত ফল চাষে ক্ষতি হচ্ছে বলে অভিযোগ চাষিদের।

আগেও এ নিয়ে বিক্ষোভ করেছেন চাষিরা। সেই সময় পুলিশের সঙ্গে তাঁদের ধস্তাধস্তি বাঁধে। পরে একজন চাষি কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন। সেই মামলায় ক্ষতিপূরণের নির্দেশ দিয়েছিল হাইকোর্ট।

সূত্র- হিন্দুস্তান টাইমস বাংলা

বিশদে পড়তে এখানে ক্লিক করুন

চাষিদের ঘেরাও অভিযানে তীব্র উত্তেজনা

কওমি ইনসাফ মোর্চার নেতৃত্বে কৃষকরা বিক্ষোভ আরো তীব্র করেছেন। সোমবার পাঞ্জাব জুড়ে শত শত কৃষক চণ্ডীগড় মোহালি সীমান্তে ডলফিন ক্রসিংয়ে বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে যোগ দেন।

এসএসপির বাসভবন ঘেরাও করা হয়। সেখানে চণ্ডীগড় পুলিশ বিক্ষোভকারীদের আটক করে থানায় নিয়ে যায়। এরপর তাঁদের থানায় কয়েক ঘণ্টা আটক করে শহরের সীমানার বাইরে ছেড়ে দেওয়া হয়।

সূত্র – দ্য টাইমস অব ইন্ডিয়া

বিশদে পড়তে এখানে ক্লিক করুন

আরএসএস’কে তোপ দাগলেন রাকেশ টিকায়েত

উত্তরপ্রদেশের মুজাফফরনগরে চলমান কৃষক আন্দোলনে সমর্থন জানাতে গিয়েছিলেন রাষ্ট্রীয় লোকদলের বিধায়ক এবং পদাধিকারীরা। যার প্রেক্ষিতে কৃষক নেতা রাকেশ টিকায়েত বলেন, কোনো রাজনৈতিক নেতাকে মঞ্চে উঠতে দেওয়া হবে না। কৃষকের সামর্থ্যে সবাইকে আন্দোলনে যোগ দিতে হবে। তিনি এদিন ধর্মীয় বিভাজনের প্রশ্নে আরএসএস’কে তীব্র আক্রমণ করেন।

সূত্র- ইটিভি ভারত উত্তরপ্রদেশ

বিশদে জানতে ভিডিওটি দেখুন

ট্যাগ করা হয়েছে:
এই নিবন্ধটি শেয়ার করুন
মতামত দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *