জয় কিষাণ: ৩১ জানুয়ারি ২০২৩

জয় কিষাণ ডেস্ক
লিখেছেন জয় কিষাণ ডেস্ক পড়ার সময় 4

বিশেষ ফটো ফিচার: ২৬ জানুয়ারি দেশজুড়ে সংযুক্ত কিষাণ মোর্চার নানা কর্মসূচি, পর্ব – ২

সংযুক্ত কিষাণ মোর্চার ডাকে ২৬ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার সারা দেশের কৃষকরা বিভিন্ন রাজ্যের জেলায় জেলায় ট্রাক্টর মিছিল, পদযাত্রা এবং আরও নানা কর্মসূচি পালন করলেন। দিল্লির কৃষক আন্দোলনে শহিদ হওয়া চাষিদের স্মরণ করলেন তাঁরা। আমরা ফটো ফিচারের মাধ্যমে ধারাবাহিকভাবে সংযুক্ত কিষাণ মোর্চার এদিনের দেশব্যাপী ট্রাক্টর মিছিল, পদযাত্রা এবং শহিদ স্মরণ অনুষ্ঠানের ছবি ও সেই সংক্রান্ত তথ্যালাপ তুলে ধরছি। দ্বিতীয় পর্বে থাকছে তেলেঙ্গানা, কেরালা, মধ্যপ্রদেশ, হরিয়ানা ও রাজস্থান।

বিশদে দেখতে এখানে ক্লিক করুন

পাঞ্জাবে চাষিদের রেল রোকো কর্মসূচি

পাঞ্জাবের ১২টি জেলা জুড়ে ১৫টি রেলস্টেশনে রবিবার কিষাণ মজদুর সংঘর্ষ কমিটির (কেএমএসসি) নেতৃত্বে কৃষকরা রেল রোকো কর্মসূচি পালন করেন। জলন্ধর ক্যান্ট রেলওয়ে স্টেশনেও তিন ঘণ্টার জন্য রেল রোকো কর্মসূচি হয়। শিখ বন্দিদের মুক্তির দাবি-সহ লখিমপুর খেরির হত্যাকাণ্ডে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া, নদীর জল পরিষ্কার করা, মাদক নির্মূল করা ইত্যাদির দাবিতে তাঁরা এই রেল-রোকো কর্মসূচিতে অংশ নেন।

তাঁদের প্রতিবাদের কারণে এদিন অন্তত নয়টি ট্রেন সম্পূর্ণ বাতিল করা হয়েছে। এদিন রেল রোকো কর্মসূচিতে কেএমএসসির জলন্ধরের সভাপতি সালবিন্দর সিং জানিয়া, কাপুরথালার সভাপতি সারওয়ান সিং বাউপুর উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও রাজ্য কমিটির সম্পাদক সুখবিন্দর সিং সাব্রা এবং রাজ্য কোষাধ্যক্ষ গুরলাল সিং পান্ডোরিও এদিনের বিক্ষোভ কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন।

সূত্র- ওয়ান ইন্ডিয়া হিন্দি

বিশদে জানতে ভিডিওটি দেখুন

কর্ণাটক সরকারের ওপর চাপ বাড়াচ্ছেন কৃষকরা

কর্ণাটকে আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে বিজেপি সরকারের ওপর চাপ বাড়াচ্ছেন কৃষকরা। তাঁদের দাবি, দু’বছর আগে কর্ণাটক সরকারের প্রণয়ন করা বিতর্কিত কৃষি আইন অবিলম্বে প্রত্যাহার করতে হবে। কর্ণাটক রাজ্য রাইথা সংঘ এবং হাসিরু সেনে নতুন করে কৃষক আন্দোলনের রূপরেখা তৈরি করতে আগামীকাল একটি বৈঠকের ডাক দিয়েছে।

যদিও কেন্দ্রীয় সরকার তিনটি কালা কৃষি আইন বাতিল করার প্রতিশ্রুতি দেওয়ার পর কর্ণাটকের কৃষকরা রাজ্যের কৃষি আইন বদলানোর জন্য আন্দোলন করছিলেন কিন্তু রাজ্য সরকার তাঁদের সেই আন্দোলনে কর্ণপাত করেনি। আসন্ন নির্বাচনকে সামনে রেখে এবার কর্ণাটকের কৃষকরা কোমর বেঁধে তৈরি হচ্ছেন রাস্তায় নামতে। তাঁদের সাফ কথা, রাজ্যের কৃষি আইন বাতিল না করলে তাঁরা ভবিষ্যতে আরও কড়া পদক্ষেপ নেবেন।

সূত্র- দ্য টাইমস অফ ইন্ডিয়া

বিশদে পড়তে এখানে ক্লিক করুন

মালদায় কৃষকদের ১০০ দিনের কাজে দুর্নীতি

একশ দিনের প্রকল্পে পাঁচ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ মালদার গাজোলের দেওতলা গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান, অঞ্চল সভাপতি এবং পঞ্চায়েতের কর্মীদের একাংশের বিরুদ্ধে। মালদার জেলা শাসকের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন গাজোলের দেওতলা গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকাবাসীর একাংশ। তদন্ত শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলাশাসক।

সূত্র- এবিপি আনন্দ

বিশদে জানতে ভিডিওটি দেখুন

গাইঘাটায় হিমঘরের দাবি তুললেন কৃষকরা

নিজস্ব প্রতিনিধি: গাইঘাটা ব্লকের একটি সীমান্তবর্তী গ্রাম হল বেড়ি পাঁচপোতা। এখানে প্রতি সপ্তাহে শনি ও মঙ্গলবার পাইকারি হাট বসে। বহু কৃষক তাঁদের উৎপাদিত ফসল বিক্রির জন্য দীর্ঘ পথ পেরিয়ে এই হাটে আসেন। এখান থেকে ফসল কলকাতা-সহ বিভিন্ন স্থানে যায়।

এলাকার স্থানীয় চাষিদের দীর্ঘদিনের দাবি, কাঁচা সবজি ও ফুল সংরক্ষণের জন্য একটি হিমঘর নির্মাণ করা হোক। বিষয়টিকে নিয়ে তারা একাধিক বার দাবি জানিয়েছেন প্রশাসনের কাছে। ইতিমধ্যে তাঁরা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যারের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন এই বিষয়ে।

বাধা উপেক্ষা করে বসিরহাটে ট্রাক্টর মিছিল

নিজস্ব প্রতিনিধি: ২৬ জানুয়ারি বসিরহাটে সংযুক্ত কিষাণ মোর্চার ট্রাক্টর মিছিল কোনোভাবেই করতে দেয়নি পুলিশ প্রশাসন। নানা অজুহাতে বাধা দিয়েছে। পুলিশকে জানানো হলেও টালবাহানা চলতে থাকে। শেষমেষ রবিবার সব বাধা-বিপত্তি উপেক্ষা করে চাষিদের ট্রাক্টর মিছিল বের হয়।

মিছিলের উদ্বোধন করেন জেলা কৃষক সমিতির সভাপতি পঙ্কজ ঘোষ। বক্তব্য রাখেন সারা ভারত কৃষকসভা উত্তর ২৪ পরগনার জেলা সম্পাদক মহম্মদ সেলিম গায়েন। প্রশাসনের রক্তচক্ষু না মেনে লাল পতাকা ওড়ে মাটিয়া হাইস্কুলের মাঠে। মিছিলে ডাক দেওয়া হয়, পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগাম প্রস্তুতির জন্য ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। বলা হয়, দিনমজুরেরা মজুরি ঠিকমতো পাচ্ছেন না।

টাকি রোড ধরে মিছিল যায় বসিরহাট শহর পর্যন্ত। এমএসপিকে আইনি স্বীকৃতি, বিদ্যুৎ আইন প্রত্যাহার, চারটি শ্রমকোড বাতিল, বছরে ২০০ দিনের কাজ প্রভৃতি দাবি তোলা হয় এই ট্রাক্টর মিছিলে।

ট্যাগ করা হয়েছে:
এই নিবন্ধটি শেয়ার করুন
মতামত দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *