জয় কিষাণ: ২৩ মার্চ ২০২৩

জয় কিষাণ ডেস্ক
লিখেছেন জয় কিষাণ ডেস্ক পড়ার সময় 4

অকাল বর্ষণে জমিতেই পেঁয়াজ-রসুন নষ্টের আশঙ্কা, মাথায় হাত কৃষকদের

আবহাওয়ার খামখেয়ালি আচরণে বড় ক্ষতির মুখে কৃষকরা। চৈত্রে অসময়ের বৃষ্টিতে ক্ষতি হয়ে গিয়েছে ফসলের। বিশেষ করে বড় ক্ষতির মুখে পড়েছেন পেঁয়াজ ও রসুন চাষিরা। চৈত্র মাসে কালবৈশাখীর ঝড় সেইসঙ্গে অল্প বিস্তর বৃষ্টির সঙ্গে পরিচিত বাংলা। কিন্তু এবার নিম্নচাপের জেরে টানা বৃষ্টি হচ্ছে দক্ষিণবঙ্গের বিস্তীর্ণ এলাকায়।


আর এই অসময়ের অতিরিক্ত পরিমাণ বৃষ্টি আশীর্বাদের বদলে অভিশাপ হয়ে দেখা দিয়েছে মুর্শিদাবাদের চাষিদের জীবনে। অকাল বর্ষণে বিঘের পর বিঘে জমি জলের তলায় চলে গিয়েছে। এতে জমিতেই পচে যাচ্ছে পেঁয়াজ, রসুনের মত ফসল। এই পরিস্থিতিতে চাষিদের মধ্যে শুরু হয়েছে হাহাকার। কোনও ভাবেই ফসল বাঁচানো সম্ভব হয়নি। কারণ ইতিমধ্যেই জমিতে হাঁটু জল দাঁড়িয়ে গিয়েছে। এই অবস্থায় ক্ষতিগ্রস্ত চাষিদের একটাই চিন্তা, এরপর কী হবে? কী করে এই বিপুল ক্ষতি সামলানো যাবে?

সূত্র- নিউজ ১৮ বাংলা

বিশদে পড়তে এখানে ক্লিক করুন

ফলন হওয়ার আগেই পোকার আক্রমণে ক্ষতিগ্রস্ত চাষিরা

ময়নাগুড়ির চূড়াভাণ্ডার গ্রামের একাধিক চাষি ভারাক্রান্ত মন নিয়ে চাল কুমড়ো গাছে রাসায়নিক সার এবং কীটনাশক স্প্রে করছেন। বিগত বছর যে তুলনায় ক্ষতি হয়েছে সেই তুলনায় দ্বিগুণ ক্ষতি হবে বলে সংশয় প্রকাশ করছেন এই গ্রামের অধিকাংশ কৃষকরা। কারণ গাছে ফুল ফল হওয়ার আগেই পোকার আক্রমণে অনেক গাছ মারা যেতে শুরু করেছে। অধিকাংশ কৃষকের জমিতে চাল কুমড়ো গাছে ভালো ফুল ফল লক্ষ্য করা গেলেও কতটা ফল ধরবে বলে এ নিয়ে চিন্তায় চাষিরা। কারণ, গত বছর সে রকম লাভ হয়নি।

এ বছর লাভ হওয়ার আশায় কৃষিজমিতে চাল কুমড়ো চাষ শুরু করেছেন। কিন্তু ফুল ফল হওয়ার আগেই মাছি এবং পোকার আক্রমণে একাধিক ফল নষ্ট হয়েছে। 

সূত্র- কৃষি জাগরণ

বিশদে পড়তে এখানে ক্লিক করুন

কৃষিজমি থেকে মাটি কাটা চলছেই, চিঠি মুখ্যমন্ত্রীকে

হুগলির চণ্ডীতলার দু’টি ব্লকের বিস্তীর্ণ এলাকায় কৃষিজমি থেকে বেআইনি ভাবে মাটি কাটার অভিযোগ নতুন নয়। এলাকাবাসীর অভিযোগ, বিষয়টি নিয়ে পুলিশকে জানিয়েও কাজ হয়নি।

পুলিশ-প্রশাসনে ভরসা হারিয়ে গ্রামবাসীদের একাংশ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে লিখিত ভাবে অভিযোগ জানিয়েছেন। শাসক দলের একাংশ এতে জড়িত বলে তাঁদের সন্দেহ।

গ্রামবাসীরা জানান, চণ্ডীতলা জুড়ে দিনভর মাটির ডাম্পার আর ট্রাক্টর চলে। মাটিবোঝাই করে ওই সব গাড়িকে অহল্যাবাই রোডের পাশে ছোট পিচরাস্তায় সার দিয়ে দাঁড় করিয়ে রাখা হয়। সন্ধ্যা হলেই অহল্যাবাই রোড ধরে গন্তব্যে যেতে থাকে গাড়িগুলি। গ্রামবাসী টুঁ শব্দ করতে পারেন না। এর জেরে কৃষিজমির পরিমাণ দিন দিন কমছে। সরাক্ষণ ভারী গাড়ির চাপে গ্রামের রাস্তাঘাট ভেঙে তছনছ হচ্ছে। ঘটছে দুর্ঘটনাও।

সূত্র- আনন্দবাজার পত্রিকা

বিশদে পড়তে এখানে ক্লিক করুন

একাধিক দাবিতে লাগাতার আন্দোলনের হুমকি জলপাইগুড়ির চা শ্রমিকদের

দৈনিক মজুরি বৃদ্ধি-সহ একাধিক দাবিতে লাগাতার আন্দোলনের ডাক দিল জলপাইগুড়ির চা বাগান শ্রমিক ইউনিয়ন।

মেটলি ব্লকে কারখানার গেটের সামনে সভা করে, পরে চা বাগানের ম্যানেজারের কাছে তাঁদের দাবি দাওয়া পেশ করেন তাঁরা। জানা যায় বর্তমানে শ্রমিকদের দৈনিক ১৯৩ টাকা মজুরি দেওয়া হচ্ছে। তাঁদের দাবি অন্যান্য ছোট চা বাগানের মতো এখানেও ২৩২ টাকা মজুরি-সহ পিএফ, গ্র্যাচুইটিও দিতে হবে। চা শ্রমিকরা অভিযোগ করেন, একাধিকবার কর্তৃপক্ষের সঙ্গে এই নিয়ে বৈঠক করলেও সুরাহা হয়নি। এবার দাবি না মানা হলে বামেদের নেতৃত্বে লাগাতার আন্দোলনে বসবেন তাঁরা।   

 সূত্র- ইউটিউব

বিশদে জানতে ভিডিওটি দেখুন

৫ এপ্রিল দিল্লির রাজপথে নামবেন অন্নদাতারা

ফের শুরু হচ্ছে কৃষক আন্দোলন? গতকাল কৃষক, খেতমজুর এবং শ্রমিক সংগঠনগুলি জানিয়েছে, আগামী ৫ এপ্রিল দিল্লির রাজপথে কিষান-মজদুর মিছিল হবে। মোদী সরকারের চার শ্রম কোড বাতিল, ন্যূনতম মাসিক মজুরির পরিমাণ ২৬ হাজার টাকা ও ন্যূনতম মাসিক পেনশন ১০ হাজার টাকা করাসহ ১৩ দফা দাবিতে আন্দোলনকারী সংগঠনগুলি দিল্লি চলো কর্মসূচির ডাক দিয়েছে। তবে কি দ্বিতীয় দফায় মোদী সরকারের বিরুদ্ধে অন্দোলনে নামছেন কৃষকরা?

সূত্র- দৃষ্টিভঙ্গি

বিশদে পড়তে এখানে ক্লিক করুন

কৃষকের থেকে লুট: ২১ মার্চ ২০২৩

ট্যাগ করা হয়েছে:
এই নিবন্ধটি শেয়ার করুন
মতামত দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *