জয় কিষাণ: ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

জয় কিষাণ ডেস্ক
লিখেছেন জয় কিষাণ ডেস্ক পড়ার সময় 4

দাম কমেছে পেঁয়াজের, প্রতিবাদে নাসিকের কৃষকরা

পেঁয়াজের দাম উল্লেখযোগ্যভাবে হ্রাস পাওয়ায় নাসিকে বিক্ষোভ প্রদর্শন করলেন কৃষকরা। রবিবার বাজার কমিটির গেটে জড়ো হয়ে তাঁরা দাবি করেন, নাসিক দেশের অন্যতম পেঁয়াজ উৎপাদনকারী অঞ্চল। এই মূল্যহ্রাস তাঁদের জীবনযাত্রার ওপর যথেষ্ট প্রভাব ফেলেছে।

কৃষকরা সঙ্গে এও জানিয়েছেন, এই বিক্ষোভ তাঁদের দুর্দশার প্রতি সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করার জন্য। সরকার উপযুক্ত ব্যবস্থা না নিলে প্রতিবাদ চালু থাকবে।

সূত্র- দ্য টাইমস অফ ইন্ডিয়া

বিশদে পড়তে এখানে ক্লিক করুন

পূর্ব বর্ধমানে সারা ভারত কৃষক ও ক্ষেতমজুর সংগঠনের বিক্ষোভ

সারা ভারত কৃষক ও ক্ষেতমজুর সংগঠনের পূর্ব বর্ধমান জেলা কমিটির উদ্যোগে বৃহস্পতিবার বর্ধমান শহরের কার্জন গেট চত্বরে বিক্ষোভ প্রদর্শন করা হয়। জেলা শাসকের কাছে তাঁরা একটি স্মারকলিপি প্রদান করেন। তাঁদের মূল দাবিগুলি হল আবাস যোজনায় সমস্ত গরিব পরিবারের নাম অন্তর্ভুক্ত করা, জব কার্ড প্রদান এবং সার ও কীটনাশকের অতিরিক্ত মূল্যবৃদ্ধি রোধ করা।

সারা ভারত কৃষক ও ক্ষেতমজুর সংগঠনের পূর্ব বর্ধমান জেলা কমিটির সম্পাদক মোজাম্মেল হক বলেন, “আজকে আমরা মাননীয় জেলাশাসকের কাছে কৃষকদের জীবনের নানা সমস্যা, ফসলের ন্যূনতম সহায়ক মূল্য প্রণয়নের আইনসম্মত দাবিতে, কেন্দ্রীয় সরকারের বিদ্যুৎ আইন ২০২২ কৃষকদের ওপর জোর করে চাপিয়ে দিতে চেয়েছিল তাঁর প্রতিবাদে স্মারকলিপি পেশ করেছি”। কৃষক নেতা আরও বলেন, “যদি আমাদের দাবি মানা না হয় তবে আমরা আরও তীব্রতর গণআন্দোলন গড়ে তুলব এবং আমাদের লড়াই চালিয়ে যাব”।

সূত্র – খবর সাতদিন

বিশদে জানতে ভিডিওটি দেখুন

কর্ণাটকে অনশন প্রত্যাহার করলেন চাষিরা

সোমবার কর্ণাটকের মাণ্ড্যর কৃষকরা তাঁদের অনশন প্রত্যাহার করলেন। এর আগে ১৫ ফেব্রুয়ারি থেকে সরকার ও প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য পাঁচটি কৃষক সংগঠনের যৌথ উদ্যোগে চাষিরা অনশন শুরু করেছিলেন। অনশন চলাকালীন শনিবার দু’জন অনশনকারী অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাঁদের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসার পর তাঁরা আবার অনশনে যোগ দেন।

সোমবার মাণ্ড্যর ডেপুটি কমিশনার চাষিদের সঙ্গে দেখা করার পর কৃষকরা ফলের রস খেয়ে অনশন ভঙ্গ করেন। যদিও কৃষকদের তরফ থেকে জানানো হয়েছে অনশন প্রত্যাহার করা হলেও তাঁরা ধর্না চালিয়ে যাবেন।

সূত্র- দ্য টাইমস অফ ইন্ডিয়া

বিশদে পড়তে এখানে ক্লিক করুন

পাঞ্জাবে চাষিদের ক্ষোভ প্রদর্শন

রাজ্য ও কেন্দ্রীয় সরকারের কৃষক বিরোধী নীতির প্রতিবাদে সোমবার পাঞ্জাবের অমৃতসরে তারন তারান রোডে চাব্বা গ্রামের কাছে কিষাণ মজদুর সংঘর্ষ কমিটির সদস্যরা কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারের কুশপুতুল পোড়ান।

কেএমএসসি নেতারা বলেন যে আম আদমি পার্টি দাবি করেছে যে তারা রাজ্যে সুশাসন প্রদান করবে এবং সমাজের কোনও অংশকে প্রতিবাদের আশ্রয় নিতে হবে না। কিন্তু বাস্তব পরিস্থিতি ভিন্ন। কেএমএসসির সাধারণ সম্পাদক সারওয়ান সিং পান্ধের এদিন বলেন, “আপ ‘ধর্না মুক্ত পাঞ্জাব’ করার দাবি করেছিল কিন্তু সরকার গঠন করার পরে, সমাজের বিভিন্ন অংশ তাঁদের অধিকারের জন্য প্রতিবাদ করতে বাধ্য হয়েছিলেন”।

ইউনিয়ন নেতারা জানান, মহাসড়কের জন্য জমি অধিগ্রহণ করতে ক্ষতিপূরণ সংক্রান্ত সমস্যা সমাধানের জন্য সরকার ২০ দিন সময় চাওয়ার পর কৃষকরা তাঁদের বিক্ষোভ প্রত্যাহার করেন। যদিও চাষিরা অভিযোগ করেন ২২ দিন পরেও, সমস্যাগুলি সমাধান করা হয়নি। সারওয়ান সিং পান্ধের বলেন, “আমরা ২২ ফেব্রুয়ারি থেকে গুরুদাসপুরে বিক্ষোভ শুরু করতে বাধ্য হচ্ছি”।

সূত্র- দ্য ট্রিবিউন

বিশদে পড়তে এখানে ক্লিক করুন

বেঙ্গালুরু-মাইসুরু এক্সপ্রেসওয়ে অবরোধ করলেন গ্রামবাসীরা

কর্ণাটকের মাণ্ড্য জেলার হানাকেরের কাছে আন্ডারপাসের দাবিতে রাস্তা অবরোধ করেন আশেপাশের গ্রামবাসীরা। রবিবার দু’ঘণ্টারও বেশি সময় অবরুদ্ধ থাকে বেঙ্গালুরু-মাইসুরু এক্সপ্রেসওয়ে। বিক্ষোভ অব্যাহত থাকায় পুলিশ বিক্ষোভকারীদের সরিয়ে দিতে লাঠি চার্জ করে।

মহাসড়কে গরুর গাড়ি দাঁড় করিয়ে অবিলম্বে আন্ডারপাস নির্মাণের কাজ শুরু করার হুমকি দিয়ে গ্রামবাসীরা জানান, দাবি না মানা হলে অনির্দিষ্টকালের জন্য এই আন্দোলন চলবে। বিক্ষোভকারীদের মধ্যে থেকে দশ জনকে পুলিশ আটক করলেও পরে ছেড়ে দেয়।

ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় মাইসুরুর সাংসদ প্রতাপ সিনহা বলেছেন, “এনএইচএআই-কে আন্ডারপাস নির্মাণের কথা জানানো হয়েছে। রাস্তার কাজ শেষ হলে গোটা বিষয় সমাধান করা হবে”।

সূত্র- দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

বিশদে পড়তে এখানে ক্লিক করুন

কৃষকের থেকে লুট: ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

ট্যাগ করা হয়েছে:
এই নিবন্ধটি শেয়ার করুন
মতামত দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *