জয় কিষাণ: ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

জয় কিষাণ ডেস্ক
লিখেছেন জয় কিষাণ ডেস্ক পড়ার সময় 4

কর্ণাটকে ফসল নষ্ট করে প্রতিবাদ জানালেন কৃষকরা

কর্ণাটকের বেলাগাভিতে সবজির দাম হঠাৎ হ্রাস পাওয়ার কারণে সেখানকার চাষিরা বিপাকে পড়েছেন। তাই ফসল ধ্বংস করাকেই বেশে নিয়েছেন প্রতিবাদ জানানোর পদ্ধতি হিসেবে। চাষিরা তাঁদের ফসলের উৎপাদন খরচ তুলতেই হিমসিম খাচ্ছেন। অনেক কৃষক তাঁদের ফসল পাইকারি বাজারে নিয়ে যাওয়ার বদলে গবাদি পশুকে খাওয়াচ্ছেন। বাঁধাকপির দাম পাইকারি বাজারে কেজি প্রতি ১ টাকায় নেমে এসেছে। অবস্থা এমন যে চাষিরা পাইকারি বাজারে তাঁদের ফসল নিয়ে গেলেও কেনার লোক মিলছে না।

সূত্রের খবর, পার্শ্ববর্তী রাজ্য মহারাষ্ট্র ও গোয়ায় বাঁধাকপির চাহিদা প্রায় নেই বললেই চলে। এছাড়াও অতি উৎপাদন বাঁধাকপির চাহিদা কমার অন্যতম কারণ বলেও মনে করা হচ্ছে। বৃহস্পতিবার কৃষকরা ডিসি অফিসের বাইরে প্রতিবাদে শামিল হন। তাঁদের দাবি, সরকারকে এর জন্য চাষিদের ন্যায্য ক্ষতিপূরণ দিতে হবে এবং সঠিক কৃষি-নীতির প্রণয়ন করতে হবে।

সূত্র- দ্য টাইমস অফ ইন্ডিয়া

বিশদে পড়তে এখানে ক্লিক করুন

পাঞ্জাবে আখ চাষিদের বিক্ষোভ

পাঞ্জাবের ধুরির এসডিএম অফিসে আখ চাষিরা বুধবার থেকে বিক্ষোভ শুরু করেছেন। তাঁদের দাবি, বেসরকারি চিনিকলগুলির থেকে তাঁদের বকেয়া ২৬ কোটি টাকা দিতে হবে। এসডিএম অফিসের সামনে এই দাবি জানিয়ে তাঁরা বিক্ষোভ দেখান।

বকেয়া টাকা পাওয়ার জন্য কৃষকদের সঙ্গে সরকারি কর্তৃপক্ষের একাধিকবার বৈঠক হওয়ার পরেও কোনও লাভ হয়নি। আখ চাষি সংগ্রাম কমিটির চেয়ারম্যান হরজিৎ সিং বুগরা বলেন তাঁদের দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত এই বিক্ষোভ চলবে।

সূত্র- পিটিসি নিউজ

বিশদে জানতে ভিডিওটি দেখুন

কৃষ্ণনগরে মাটি মাফিয়াদের উৎপীড়নে কৃষকরা বিপাকে

কৃষ্ণনগরের কোতোয়ালি এলাকায় মাটি মাফিয়াদের দৌরাত্ম্য অনেক দিন ধরে চলছে। স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, মাটি মাফিয়াদের হাত থেকে রক্ষা পাচ্ছে না ফসলি উর্বর জমি, উঁচু ভিটে, ক্ষুদ্র জলাশয়। তিন ফসলি কৃষি জমি পরিণত হচ্ছে পুকুর, ডোবায়। ফলে দিনে দিনে ফসলের উৎপাদন কমে যাচ্ছে। মাটি কেটে গভীর পুকুর হচ্ছে।

এর ফলে কাজ হারাচ্ছেন কৃষকরা। মাটি পরিবহনে গ্রামের সড়ক ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। মাটি বোঝাই ট্রাক্টরের ধাক্কায় একজনের প্রাণ যায়। এই ঘটনার পরেও প্রশাসনের তরফে কোনও ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি।

সূত্র – এই সময়

বিশদে পড়তে এখানে ক্লিক করুন

রাজস্থানে কৃষকদের মহাপঞ্চায়েত

রাজস্থানের ঘাটমিকা গ্রামে শুক্রবার অপহরণ এবং হত্যার বিরুদ্ধে এক বিশাল মহাপঞ্চায়েত আয়োজন করেন সেখানকার কৃষকরা। চাষিরা দুষ্কৃতীদের মৃত্যুদণ্ডের দাবি জানান। এছাড়াও দুজন ইসলাম ধর্মাবলম্বী মানুষের পোড়া মৃতদেহ হরিয়ানার ভিওয়ানি থেকে উদ্ধার হয়। মৃতদের পরিবার অভিযোগ করে বজরং দল এই হত্যাকাণ্ডে যুক্ত আছে।

সূত্র – ট্যুইটার

বিশদে জানতে ভিডিওটি দেখুন

আদানির বিদ্যুৎ প্রকল্পের কাজ বন্ধের দাবিতে কলকাতায় বিক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিনিধি: পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদ জেলার ফারাক্কায় আদানি গ্রুপের বিদ্যুৎ প্রকল্পের কাজ বন্ধ রাখার দাবিতে কলকাতায় বিক্ষোভ দেখায় মানবাধিকার সংগঠন এপিডিআর। বৃহস্পতিবার দুপুরে কলকাতার একাডেমি অফ ফাইন আর্টসের সামনের রানুছায়া মঞ্চে এই বিক্ষোভ করে এপিডিআর। সংগঠনটির পক্ষ থেকে জানানো হয় ফারাক্কায় ফল চাষিদের সম্মতি ছাড়াই তাদের জমিতে আদানি গোষ্ঠীর বিদ্যুতের টাওয়ার বসানো হয়েছে। হাইটেনশন তার টেনে জোর করে প্রকল্প চালু ও আন্দোলনরত চাষিদের ওপর পুলিশি হামলার প্রতিবাদে এই কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।

ঝাড়খণ্ড রাজ্যের গোড্ডা জেলায় আদানি গোষ্ঠীর তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র থেকে পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদ জেলার উপর দিয়ে খুঁটি দিয়ে উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন বিদ্যুতের তার (হাইটেনশন) যাচ্ছে বাংলাদেশে। কিন্তু জেলার যে অংশের উপর দিয়ে আদানির এই বিদ্যুৎ লাইন যাচ্ছে, সেই ফারাক্কায় প্রচুর পরিমাণ আম ও লিচুর বাগান থাকায় তাতে প্রবল আপত্তি জানান সেখানকার ফল চাষিরা। গত ৩১ জানুয়ারি আদানি গোষ্ঠীর বিদ্যুৎ প্রকল্পের ওপর স্থগিতাদেশ চেয়ে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা করেন ৩০ জন ফলচাষি ও এপিডিআর। আগামী ২০ ফেব্রুয়ারি কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি প্রকাশ শ্রীবাস্তব ও বিচারপতি রাজর্ষি ভরদ্বাজের ডিভিশন বেঞ্চে এ মামলার শুনানি হবে।

কৃষকের থেকে লুট: ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

ট্যাগ করা হয়েছে:
এই নিবন্ধটি শেয়ার করুন
মতামত দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *