জয় কিষাণ: ১৩ জানুয়ারি ২০২৩

জয় কিষাণ ডেস্ক
লিখেছেন জয় কিষাণ ডেস্ক পড়ার সময় 5

কৃষিকাজ করা সবাই ‘দলিত’, মন্তব্য রাকেশ টিকায়েতের

কৃষিকাজ করা সকল মানুষই ‘দলিত’। বুধবার নাগপুরে বহুজন সংঘর্ষ সমিতি আয়োজিত কৃষক সমাবেশে রাকেশ টিকায়েত একথা বলেন। তিনি আরও বলেন, কৃষক আন্দোলন এবং তার মধ্যে জনগণের অংশগ্রহণ আগামী বছরগুলিতে মানুষের অধিকার, তাঁদের জমি এবং তাঁদের কৃষিক্ষেত রক্ষার জন্য গুরুত্বপূর্ণ হবে। ‘দলিত’ কোনো জাতিগোষ্ঠী নয়, গ্রামে বসবাসকারী এবং মাঠে কাজ করা সকল মানুষই দলিত।

তাঁর অভিযোগ, বর্তমান বিজেপি শাসিত সরকার সংবিধানে বিশ্বাস করে না। নতুন কৃষি আইনের বিরুদ্ধে দিল্লির কৃষক আন্দোলন সম্পর্কে কথা বলতে গিয়ে তিনি বলেন “সরকার এক ষড়যন্ত্রকারী।” জাতীয় পতাকার অবমাননার অভিযোগ কৃষকদের বিরুদ্ধে তোলা হয়েছিল এবং এই ষড়যন্ত্র নাগপুরে তৈরি হয়েছিল। তাঁর আরও অভিযোগ, শিখ সম্প্রদায়কে খালিস্তানি হিসাবে চিত্রিত করার চেষ্টা করা হয়েছিল। কিন্তু দেশের জনগণ বুঝতে পেরেছে সত্যটা কী।

সূত্র- এনডিটিভি

বিশদে পড়তে এখানে ক্লিক করুন

মালদায় দুর্দশার শিকার মধু চাষিরা

মালদায় শীতের প্রকোপে বাক্স থেকে বেরোচ্ছে না মৌমাছি। চিনির লোভ দেখিয়ে তাদের বাক্স থেকে বের করতে বাধ্য হচ্ছেন কৃষকরা। খরচ বেড়ে যাওয়ার ফলে বিপাকে পড়েছেন এলাকার মধু চাষিরা।

তাঁদের বক্তব্য, সরকার কোনো সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়নি। এক সপ্তাহের বেশি সময় ধরে মালদা এলাকায় চরম শৈত্য প্রবাহ চলছে। ফলে মধু চাষ ব্যাহত হচ্ছে। মধুর মরসুমে এইরকম দুর্দশার শিকার হলে লাভের থেকে বেশি লোকসানের মুখোমুখি হবেন তাঁরা। মালদার সাহাপুর, মুচিয়া, যাত্রাডাঙ্গা, মহিষবাথানি, মঙ্গলবাড়ি, ভাবুক-সহ একাধিক গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার জীবিকা নির্বাহের একমাত্র উৎস মধুচাষ। এলাকার কৃষকরা জানান, ঠান্ডার কারণে মৌমাছিরা বাক্স থেকে বেড়িয়ে মধু সংগ্রহ করছে না। ফলে কমে যাচ্ছে উৎপাদন। উৎপাদনের স্বার্থে চিনির লোভ দেখিয়ে মৌমাছিদের বাক্স থেকে বের করতে বাধ্য হচ্ছেন তাঁরা। ফলে বেড়ে যাচ্ছে উৎপাদন ব্যয়। সেই অনুযায়ী মিলছে না লাভ। তাই বিপাকের সম্মুখীন হচ্ছেন তাঁরা।

পাশাপাশি এই বছর মধুর দাম কমে যাওয়ায় আরও বেশি চিন্তার মুখে পড়ছেন সংগ্রাহকরা। তাঁরা জানান, পর্যাপ্ত দাম না মিললে কোনোভাবেই লাভের মুখ দেখা যাবে না। এক্ষেত্রেও সরকার কোনো বন্দোবস্ত করেনি।

সূত্র- খাসখবর

বিশদে পড়তে এখানে ক্লিক করুন

জমি অধিগ্রহণের বিরুদ্ধে তোলপাড় বিহারের বক্সার, প্রশাসনের বিরুদ্ধে বাড়ছে ক্ষোভ

জমি অধিগ্রহণের বিরুদ্ধে বিহারের বক্সারে কৃষকদের বিক্ষোভ চরমে পৌঁছল। গত দু’মাস ধরে বিহার সরকারের চৌসা বিদ্যুৎ প্ল্যান্ট তৈরি নিয়ে বক্সারে আন্দোলন করছেন কৃষকরা। তাঁদের অভিযোগ, যে জমি সরকার অধিগ্রহণ করেছে, তার ন্যায্য মূল্য দেওয়া হয়নি। কৃষকদের দাবি, তাঁরা শান্তিপূর্ণভাবে আন্দোলন করছেন। কিন্তু পুলিশ দিয়ে আন্দোলন স্তব্ধ করে দিতে চাইছে সরকার। মঙ্গলবার রাতে গ্রামে ঢুকে কৃষক পরিবারের সদস্যদের বেধড়ক লাঠিপেটার অভিযোগ উঠেছে। শীতের রাতে পুলিশি ‘হেনস্থা’ থেকে রক্ষা পাননি মহিলারাও।

সূত্র- ইন্ডিয়া টিভি

বিশদে জানতে ভিডিওটি দেখুন

সরকারি জমি দেদার বিক্রির ছাড়পত্র নবান্নের, বিপাকে চা বাগানগুলি

নিজস্ব প্রতিবেদন: সরকারি জমিকে খোলাবাজারে বিক্রির ছাড়পত্র দিল নবান্ন। বুধবার রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠক থেকে এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হয়। সরকারের বিভিন্ন দফতরের হাতে এই মুহূর্তে প্রায় ২০ হাজার একর জমি আছে। সরকারের এই সিদ্ধান্তে রাজ্যের যে কোনও সরকারি দফতরের জমি এখন থেকে বিক্রি করতে সরকারের আর কোনো অসুবিধা থাকলো না। এর ফলে পাট্টার সুযোগ থেকে বঞ্চিত হবেন ভূমিহীনরা।

এতদিন সরকারি জমিকে লিজে দেওয়ার ব্যবস্থা চালু ছিল। লিজের জমির মালিকানা সরকারের হাতেই থাকত। সাধারণভাবে ৩০ বছরের জন্য স্বল্পমেয়াদি লিজ ও ৯৯ বছরের জন্য দীর্ঘমেয়াদি লিজ দেওয়া হত। এবার সেই লিজের ব্যবস্থাই তুলে দিয়ে সরকারি জমিকে ফ্রি হোল্ড করে দিয়ে বিক্রি করার পথ খুলে দেওয়া হচ্ছে। সরকারের এই সিদ্ধান্তের ফলে চা বাগানের জমির অবস্থা সংকটে, যা কিনা সরকারের লিজে দেওয়া হত। এবার সেই জমিও বাগান মালিকদের কাছে বিক্রি করার ছাড়পত্র দিয়ে রাখল নবান্ন।

উত্তরপ্রদেশে মৃত কৃষকের দেহ উদ্ধার

কানপুরের কাছে উদ্ধার হল এক মৃত কৃষকের দেহ। সোমবার রাতে আউরাইয়ার বীরপুর গ্রামে থেকে ওই কৃষকের দেহ উদ্ধার করা হয়। মৃত কৃষকের নাম শিবরাজ সিং (৭০)।

মৃত চাষির পরিবার সূত্রে জানা যায়, সোমবার রাতে গ্রামের বাইরে দুর্গা মন্দির সংলগ্ন একটি ঘরের মধ্যে রহস্যজনক অবস্থায় তাঁর দেহ উদ্ধার করা হয়। এরপর তাঁর ছেলে থানায় অভিযোগ দায়ের করলে সার্কেল অফিসার বিধুনা মহেন্দ্র প্রতাপ সিং এবং আচলদা থানার ইনচার্জ সত্যপ্রকাশ সিং ঘটনাস্থলে পৌঁছে তদন্ত শুরু করেন। তাঁরা জানান, দেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট এলেই মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা সম্ভব হবে।

সূত্র- টাইমস অফ ইন্ডিয়া

বিশদে পড়তে এখানে ক্লিক করুন

কৃষকের থেকে লুট: ১১ জানুয়ারি ২০২৩

ট্যাগ করা হয়েছে:
এই নিবন্ধটি শেয়ার করুন
মতামত দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *