বাংলার কৃষকের আয় পাঞ্জাবের কৃষকের তুলনায় ৩ গুণ কম; উঠে এল নাবার্ডের সমীক্ষায়

জয় কিষাণ ডেস্ক
লিখেছেন জয় কিষাণ ডেস্ক পড়ার সময় 2

ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক ফর এগ্রিকালচার অ্যান্ড রুরাল ডেভেলপমেন্ট ( নাবার্ড)- এর সাম্প্রতিক সমীক্ষায় উঠে এসেছে চাঞ্চল্যকর তথ্য। “কৃষকের কল্যাণ, ভারতব্যাপী একটি সমীক্ষা” শীর্ষক একটি বিশ্লেষণে দেখা যাচ্ছে অন্যান্য রাজ্যের কৃষকের অর্থনৈতিক অবস্থার তুলনায় পশ্চিমবঙ্গের কৃষকেরা বেশ কিছুটা পিছিয়ে রয়েছেন। বিশেষত, পাঞ্জাব, কেরল, হরিয়ানার কৃষকদের তুলনায়। আর পাঞ্জাবের কৃষকেরা তো পশ্চিমবঙ্গের কৃষকদের অর্থনৈতিক স্বনির্ভরতায় তিনগুণ এগিয়ে।

নাবার্ডের সমীক্ষায় উঠে আসা তথ্য অনুযায়ী, পশ্চিমবঙ্গে কেবলমাত্র কৃষিকাজের ওপর নির্ভরশীল পরিবারের গড় বার্ষিক আয় ৯২০৭২ টাকা, অর্থাৎ মাসিক গড় আয় ৭৫৭৩ টাকা। অন্যদিকে, পাঞ্জাবে কৃষিজীবী পরিবারের মাসিক গড় আয় ২৩,১৩৩ টাকা, হরিয়ানায় ১৮,৪৯৬ টাকা, কেরলে ১৬, ৯২৭ টাকা। তবে ঐ সমীক্ষা অনুযায়ী শুধুমাত্র ভারতের ছয়টি রাজ্য এক্ষেত্রে পশ্চিমবঙ্গের থেকেও পিছনে রয়েছে। এই রাজগুলো হল, অন্ধ্রপ্রদেশ, বিহার, ঝাড়খন্ড, ওড়িশা, ত্রিপুরা এবং উত্তরপ্রদেশ।

দ্বিতীয়ত এই সমীক্ষায় জমিপ্রদত্ত ঋণের পরিমাণ নিয়েও পরিসংখ্যান উঠে এসেছে। এই তালিকায় পশ্চিমবঙ্গের স্থান ১৫তে। যদিও এই সমীক্ষার আদৌ কোনো ভিত্তি আছে কি না তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন রাজ্যের কৃষিমন্ত্রী শোভন চট্টোপাধ্যায়। তাঁর বক্তব্য, এই রিপোর্টটি এখনও অবধি চোখেই পড়েনি, তাই এর মধ্যে ঠিক কী আছে তা নিয়ে মন্তব্যের অবকাশ নেই। তিনি আরও জানান, ২০১১তে তৃণমূল কংগ্রেস ক্ষমতায় আসার পর রাজ্য সরকারের রিপোর্ট অনুযায়ী একটি কৃষক পরিবারের আয় তিনগুণ বেড়েছে। তবে মহামারীর কারণে গত ২ বছর এই লেখচিত্র কিছুটা নিম্নগামী হতে পারে। তবে তা সত্ত্বেও পরিস্থিতি এতটাও উদ্বেগজনক নয়, যেটা দাবি করছে নাবার্ড।

সূত্র- বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড

বিশদে পড়তে এখানে ক্লিক করুন

ট্যাগ করা হয়েছে:
এই নিবন্ধটি শেয়ার করুন
মতামত দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *